শিরোনাম :
নবীনগর শিবপুরে জশনে জুলুছে র‍্যালী আলোচনা সভ ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত । নবীনগর বাজারে মোবাইল কোর্টের অভিযান সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশনের সংবর্ধনা পেলেন সাবেক ছাত্রনেতা এম. নাঈমুর রহমান নবীনগরের মুক্তি প্রাইভেট হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দেশ প্রেমিক জনতার দল নবীনগর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন। নবীনগরে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত আশুগঞ্জে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত নাটঘর মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্ট এর ফাইনাল খেলায় চ্যাম্পিয়ন চড়িলাম ফুটবল একাদশ। নবীনগর নারুই গ্রামে ফিশারিজ পদ্ধতিতে মৎস্য উৎপাদনে এলাকায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন,শিল্পপতি রিপন মুন্সি । নবীনগরে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ চার নারী আটক
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:১০ অপরাহ্ন

বাঘাউড়া গ্রামের জামাল মিয়ার চিকিৎসার অভাবে,জীবনের আলো অস্তমিত সূর্যের মতো ডুবতে শুরু করেছে।

নবীনগর প্রতিনিধি / ২১০ বার
আপডেট : সোমবার, ১ মে, ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা শিবপুর ইউনিয়ন বাঘাউড়া গ্রামের মৃত মালেক মিয়ার ছেলে জামাল মিয়ার
চিকিৎসার অভাবে,জীবনের আলো অস্তমিত সূর্যের মতো ডুবতে শুরু করেছে।

তিনি বর্তমানে দুরারোগ্য ব্যাধি দুইটি হার্ড ব্লক একটি বাল্ব ওকেজ আক্রান্ত হয়ে শয্যাশয়ী।
তিনি ঢাকা আই ফাউন্ডেশন হাসপাতালের অধীনে চিকিৎসা নিচ্ছেন, চিকিৎসকের পরামর্শে উনাকে কয়েক লক্ষ টাকা ব্যয়বহুল চিকিৎসা নেওয়া কষ্টসাধ্য।
গেল কয়েক মাস পূর্বে
চিকিৎসার তলে উনার জায়গা সম্পত্তির সবকিছু বিলিয়ে দিয়ে তিনি এখন ছোট ছোট দুই ছেলে এক মেয়ে ও স্ত্রী নিয়ে বাড়িতে দিন কাটাচ্ছেন ।

দুইটি হার্ড ব্লক একটি বাল্ব ওকেজ আক্রান্ত হয়ে শয্যাশয়ী জালাল ভাইয়ের জীবনের বাঁচার আকুতি, অর্থাভাবে হচ্ছে না সঠিক চিকিৎসা।

অর্থাৎ অর্থাভাবে তিনি সঠিকভাবে চিকিৎসা খরচ চালাতে পারছেন না। তাই সমাজের সকলের নিকট তিনি আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।
ইতিমধ্যে উনাকে নিয়ে উনার শুভাকাঙ্খী অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন।

মোঃ জামাল মিয়া ব্যাক্তিগত মোবাইল নম্বার,
01779279690 এবং উনার বিকাশ নম্বার আসুন জালাল ভাইকে বাঁচতে সহযোগিতা করি।
আপনার আমার সামান্য সহযোগিতায় মহান রাব্বুল আলামিন যদি তার হায়াত দুনিয়াতে রেখে থাকেন ,
আবারো সুস্থ হয়ে জামাল ভাই ছোট ছোট ছেলে মেয়ে বউ বাচ্চা নিয়ে আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন ।

তিনি তার ছেলেমেয়ে বউ বাচ্চা নিয়ে মাছের ব্যবসা করে জীবিকা সংগ্রহ করে আসছিলেন।
দুইটি হার্ড ব্লক একটি বাল্ব ওকেজ আক্রান্ত হয়ে শয্যাশয়ী জালাল আজ দুই বছর ধরে অর্থাভাবে হচ্ছে না সঠিক
চিকিৎসা,তাই জীবনের আলো অস্তমিত সূর্যের মতো ডুবতে শুরু করেছে।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ